কীভাবে ওয়েবসাইট বা ব্লগ এর এসইও করতে পারি?

এসইও শিখুন, এসইও গাইড

0

আপনি যদি অনলাইনে বিজ্ঞাপন থেকে আয় করতে চান তাহলে আপনার সাইট বা ব্লগকে জনপ্রিয় করে তুলতে হবে। দৈনিক ভিজিটর বা ট্রাফিক বৃদ্ধি মানেই জনপ্রিয়তা পাওয়া। অধিক ভিজিটর প্রাপ্তি এবং সেলস বাড়াতে সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন(এসইও) এর বিকল্প নেই। আর এসইও করতে হলে প্রথমে আপনাকে ওয়েবসাইট এনালাইসিস রিপোর্ট হাতে পেতে হবে। অনলাইনে অনেকগুলো সাইট আছে যেগুলোতে আপনার সাইট লিংক সাবমিট করে এনালাইসিস রিপোর্ট বের করে নিতে পারবেন। এ রকম পেইড ও ফ্রি সার্ভিস থেকে রিপোর্ট নিয়ে এসইও কাজ শুরু করতে পারেন। আমি পেইড সার্ভিস নেয়ার পরামর্শ দেব কারণ সে কারণে আনলিমিটেড সার্ভিস পাবেন। নবীনদের পাশাপাশি যারা পুরাতন ওয়েবসাইট বা ব্লগে ভিজিটর বাড়াতে চান সে সব ব্লগারদের জন্য সংক্ষিপ্ত এই এসইও গাইড।

এই আর্টিকেলটি পড়লে সংক্ষেপে আপনি নিচের প্রশ্নগুলোর উত্তর জানতে পারবেন।SEO Tutorial Bangla ,এসইওর মূল শিক্ষনীয় পয়েন্ট বা বিষয়বস্ত কি কি,নতুন ব্লগার হয়ে থাকলেতো কথাই নেই, এখানেই পেয়ে যাবেন কি কি করতে হবে। পয়েন্টগুলো ধরে ধীরে ধীরে কাজ করতে থাকুন। আপনার ওয়েবসাইট ভিজিটর পেতে শুরু করবে।

এসইও গাইড বা SEO( এসইও) টিপস গুলো এখান থেকে জেনে নিন।

এসইও দুরকমের হয়।
০১. অনপেইজ অপটিমাইজেশন
০২. অফ পেইজ অপটিমাইজেশন

এসইও শুরুর আগে সাইটের ডিজাইনকে আকর্ষনীয় করুন। সাইটের কোন এরর থাকলে তা রিমোভ বা ফিক্সড করে নিন। একটি পুরাতন সাইট হিসেবে থাকা পুরাতন ভারি ইমেজ ফেলে দিন। তারপর ধীরে ধীরে এসইও শুরু করুন।
প্রথমে শুরু করুন অনপেইজ অপটিমাইজেশন।এটির কাজ শেষ হয়ে গেলে অফ পেইজ এইও’র কাজ ধরবেন।
অনপেজ একটিভিটিস:
• কীওয়ার্ড রিচার্স ও অ্যানালাইসিস
• প্রতিযোগি সাইটের অ্যানালাইসিস
• কনটেন্ট অপটিমাইজেশন
• ইন্টারনাল লিংকিং স্ট্রাকচার পরিবর্তন
• ইউআরএল স্ট্রাকচার পরিবর্তন
• সাইটম্যাপ আপডেট/নতুন করে বানানো
• কীওয়ার্ড ইউআরএল ম্যাপিং
• ক্রিয়েশন অব মেটা ইনফরমেশন
• টাইটেল ট্যাগ(এলএনআই বেজড)
• ডেসক্রাইপশান ট্যাগ(এলএসআই বেজড)
• এইচটিএমএল কোডিং,ভেলিডেশন এন্ড কারেকশান
• এইচ ১, এইচ ২ এন্ড স্ট্রং ট্যাগস
• ক্যানোনিক্যাল ইস্যু চেক
• এরর ৪০৪ পেইজ অপটিমাইজেশন
• রবোটস ডট টেক্স
• ইউআরএল আরকিটেক্সার
• গুগল,বিং এন্ড ইয়াহু সাইট ম্যাপ অথেনটিক্যাশন
• এক্সএমএল সাইট ম্যাপ
অফ পেইজ একটিভিটিজ:
• ডাইরেক্টরি সাবমিশন
• সোশ্যাল বুকমার্কিং
• ব্লগ কমেন্টিং
• ফোরাম কমেন্টিং
• ব্লগপোস্ট রাইট(ব্লগার ওওয়ার্ডপ্রেস)
• ওয়েব২.০ সাবমিশন
• আর্টিকেল সাবমিশন
• প্রেসরিলিজ সাবমিশন
• আরএসএসফিড জেনারেশন এন্ড সাবমিশনস
• রিভিউ সাবমিশন
• বিজনেস প্রোফাইল ক্রিয়েশণ
• প্রশ্ন এন্ড (Q & A)সাবমিশন
• ডকুমেন্ট শেয়ারিং
• ক্লাসিফাইড এডস সাবমিশন
• ভিডিও সাবমিশন এন্ড প্রমোশন
• ফটো সাবমিশন এন্ড প্রমোশন
• লোকাল বিজনেস লিস্টিং(গুগল,বিং@লোকাল লিস্টিং সাইটস)
• সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং
• অন –পেজ অপটিমাইজেশন:
• পেইজ কোডিং এর মাধ্যমে ওয়েবসাইট নিয়ন্ত্রণ করা হল অন পেইজ অপটিমাইজেশন।
• অন –পেজ অপটিমাইজেশন টেকনিকগুলো হল:
• ১. ওয়েবসাইট স্ট্রাকচার
• ২. মেটা ট্যাগস
• ৩. এইচটিএমএল ট্যাগস
• ৪. অল ট্যাগস(Alt tags)
• ৫. এক্সএমএল এবং এইচটিএমএল সাইট ম্যাপ
• ৬. রোবটস ডট টেক্সট(Robots.txt)
• ৭. সাইট লোডিং স্পিড
• ৮.ওয়েবসাইট ইউআরএল স্ট্রাকচার
• ৯. সাইট UI ডিজাইন
• ১০.গুগল অ্যানাইটিক্স এবং ওয়েবমাস্টার
• অফ পেইজ অপটিমাইজেশন:
• যে পেইজ কোডিং এর মাধ্যমে যখন কোন ওয়েবসাইট নিয়ন্ত্রণ করা হয় না তাকে অফ পেইজ অপটিমাইজেশন বলে। মূলত এটি আমাদের ব্যাকলিংক তৈরি করে।
দি বেস্ট এসইও ব্যাকলিংক টেকনিকগুলো হল নিম্মরুপ:
• ১.সোশ্যাল বুকমার্কিং
• ২.ডাইরেক্টরি সাবমিশন
• ৩. ক্লাসিফাইড এডস
• ৪. লোকাল বিজনেস লিস্টিং
• ৫. ফোরাম পোস্টিং
• ৬. পিপিটি সাবমিশন
• ৭. কিউএনএ(প্রশ্ন ও উত্তর)
• ৮. ওয়েব২.০
• ৯. ব্লগ রাইটিং এবং সাবমিশন
• ১০. ইনফোগ্রাফিক্স

মোবাইল এসইও : বর্তমান সময়ে ব্লগ বা ওয়েবসাইটের সবচেয়ে বেশি ভিজিটর আসে ৬০%+ মোবাইল ফোন থেকে। তাই মোবাইল এসইও খুব জরুরি বিষয়।

গুগল ও অন্যান্য সার্চ ইঞ্জিনে আপনার ব্লগ বা ওয়েবসাইটের উঁচুমানের RANKING পেতে হলে
০১. প্রতিদিন Rank চেক করতে হবে
০২. অটোমেটেড এসইও অডিট করতে হবে

বাংলা ওয়েবসাইট এসইও করার নিয়ম

সার কথা: ওয়েবসাইট বা ব্লগকে আধুনিক পদ্ধতিতে এসইও ফ্রেন্ডলি পোস্ট সাবমিশন করে খুব সহজেই গুগল থেকে ফ্রীতে অর্গানিক ভিজিটর পেতে পারেন। এতে সাইটের র্যাং কিং বাড়তে থাকবে।SEO ছাড়া আপনার সাইট কখনই গুগল রেংকিং-এ ভালো পজিশনে যাবে না।সাইট মনিটাইজ করতে পারবেন না।সাইট থেকে যদি অনলাইন ইনকাম পেতে চান তবে উপরের নিয়মগুলো অনুসরণ করে এসইও করে ফেলুন। একই নিয়মে বাংলা ব্লগ বা ওয়েবসাইট এসইও করতে পারেন। এসইও কি? SEO করে মাসে ৪০-৫০ হাজার টাকা ইনকাম করা সম্ভব

Leave A Reply

Your email address will not be published.