15+ ফ্রিল্যান্সিং ওয়েবসাইট, যেখানে নিশ্চিত কাজ পাবেন

বাংলাদেশি ফ্রিল্যান্সাররা যেখানে দিবারাত্র কাজ করছেন

0

একজন ফ্রিল্যান্সার এমন একজন ব্যক্তি যিনি স্ব-কর্মসংস্থান হিসাবে নিজেই কাজ যোগাড় করে নিজে নিজে করে থাকেন। তারা অন্যের তদারকি ছাড়াই এবং দীর্ঘকাল কারও কাছে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ না হয়ে নিজেই নিজের বস হিসাবে তাদের কাজের কাজগুলো করে যান।তাদের নেই কোন জবাবদিহিতা ও টাইমফ্রেম। ফ্রিল্যান্সিং যারা করছেন তারা যখনখুশি বিশ্রাম নেন আর যখন খুশি কাজ করেন। মোট কথা মাসিক বেতভোগী কর্মচারীর মত তাদের হাতপা বাধা থাকে না। সকাল ৯টায় অফিসে হাজিরা দিতে হয় না। কাজ সময়মত ক্লায়েন্টকে বুঝিয়ে দিতে পারলে হল।

আজকাল ফ্রিল্যান্সিং সব ধরণের বয়সের মানুষের কাছে খুব আগ্রহের একটি কাজ। তারা স্থায়ী এবং অস্থায়ী ভিত্তিতে অবাধে সংস্থা ও সংস্থার হয়ে পারফর্ম করতে পারে। তারা এজেন্সি থেকে কোম্পানী সবার সাথে ক্লায়েন্ট হিসেবে কাজ করতে পারে। তারা স্বতন্ত্রভাবে তাদের কাজ করেন। ফ্রিল্যান্সারদের সহায়তার জন্য, অনেকগুলি ওয়েবসাইট এবং অনলাইন প্ল্যাটফর্ম রয়েছে ।

ফ্রিল্যান্সাররা যে কোনও জায়গা থেকে তাদের কাজ করতে পারেন। তারা কতটা সময় কাজ করতে চান এবং কতটা তারা কাজ করবেন না, তা বেছে নিতে পারেন।সকাল বেলা অফিসে ঢুকে অবশ্য করণীয় কাজ এবং অফিসের সময় মেনে চলা এবং এখানে বসের চাপ সম্পর্কে উদ্বিগ্ন হওয়ার দরকার নেই। ধীরে সুস্থে ঘুম থেকে উঠে কাজ করবো।

ফ্রিল্যান্সিং ওয়েবসাইটগুলি আসলে সেই প্ল্যাটফর্মগুলি যেখানে লোকেরা তাদের কাজের সন্ধান করে এবং নিয়োগকর্তারা তাদের অফার পোস্ট করে। বর্তমান দিনগুলিতে লোকেরা কম দামে তাদের কাজ করার জন্য বিভিন্ন ওয়েবসাইটের বিশেষজ্ঞদের ভাড়া করে। ফ্রিল্যান্সার হওয়া অর্থ কারও প্রতিভা এবং অর্থের প্রতি আগ্রহকে ঘুরিয়ে দেওয়ার একটি দুর্দান্ত উপায়। আসলে যে কারও পছন্দ / বিশেষজ্ঞ হিসাবে একমাত্র চাকরীর জন্য আবেদনের স্বাধীনতা রয়েছে। এক্ষেত্রে অনেক ওয়েবসাইট রয়েছে।
এখন, আমি আপনার সাথে “শীর্ষস্থানীয় ২০ ফ্রিল্যান্সিং জব মার্কেটপ্লেস সম্পর্কে আলোচনা শেয়ার করতে চাই। যা আপনাকে প্রয়োজনীয় কাজের সন্ধানে অনেক বেশি সহায়তা ও পরামর্শ দেবে।

ফ্রিল্যান্সিং ওয়েবসাইটগুলি/ বাংলাদেশি ফ্রিল্যান্সিং ওয়েবসাইট জব

০১. গুরু.কম

গুরু ডট কম একটি বেসরকারী ফ্রিল্যান্সিং মার্কেটপ্লেস যা ১৯৮৮ সালে পিটসবার্গে প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল। এই সাইটটি পুরানো এবং পুরুষদের পছন্দের সাইটগুলির মধ্যে একটি। অন্য মার্কেটপ্লেসগুলো কাজ শেষ করার পরে ফ্রিল্যান্সার থেকে কমপক্ষে ৫-১০% অর্থ সার্ভিস চার্জ বাবদ কেটে নেয়। তবে এই সাইটটি কিছুই কাটে না। সুতরাং এই সাইটটি নতুন ফ্রিল্যান্সারদের জন্য সত্যই সহায়ক বলা যায়। এটি ব্যবহার করা মোটামুটি সহজ।
ওয়েবসাইট ঠিকানা: www.guru.com

০২. ফ্রিল্যান্সার ডটকম

২০০৯ সালে প্রতিষ্ঠিত, এই অস্ট্রেলিয়ান আউটসোর্সিং ওয়েবসাইটটি বিশ্বের অন্যতম বিখ্যাত আউটসোর্সিং মার্কেটপ্লেস হিসেবে স্বীকৃত। এটিতে ইংরেজি, জার্মান, ফরাসী, ইন্দোনেশিয়ান, ইতালিয়ান, স্পেনীয়, পর্তুগিজ, তুর্কি, ফিলিপিনো এবং ডাচ ভাষায় কাজ করা যায় । যে কেউ এখান থেকে একজন ফ্রিল্যান্সার হায়ার করে নিতে পারেন। এটি অর্থ প্রদানের জন্য সবচেয়ে নিরাপদ জায়গা। যদি কেউ এখানে কাজ করতে চায় তবে তাকে একটি অ্যাকাউন্ট এবং তার বিশেষ ২০ টি ক্ষেত্রে দক্ষতা থাকতে হয়। তারপরে গ্রাহকরা ফ্রিল্যান্সার সম্পর্কে জানতে পারবেন। পুরো কাজ শেষ করার পরে ফ্রিল্যান্সার তার পেমেন্ট পাবেন। এই পেমেন্টটি গ্রাহকদের পছন্দ অনুসারে। গ্রাহকদের 100% সন্তুষ্টি মানে সম্পূর্ণ অর্থ প্রদান।

০৩.Truelancer

ট্রুল্যান্সার ডটকম বাংলাদেশি ফ্রিল্যান্সারদের জন্য একটি জনপ্রিয় মার্কেট প্লেজ।এটিতে ৭৮হাজার৬২৫জন বাংলাদেশি এটির সাথে সংযুক্ত। ফ্রিল্যান্সাররা এখানে কাজ করে ক্লায়েন্টকে কাজ সঠিকভাবে বুঝিয়ে দেন আর চুক্তি মোতাবেক অর্থ নিয়ে থাকেন। বলা হয়, বিশ্বব্যাপী বিশ্বস্ত ফ্রিল্যান্সারদের ঠিকানা হল ট্র্যুান্সার।
ট্রুল্যান্সার ডটকম প্লাটফরমে নিয়োগকারী বা কাজদাতাগন ফ্রিল্যান্সারদের ভাড়া করে থাকেন।বিশ্বের প্রায় সব দেশের নিয়োগ কর্তাগন এখানে প্রতিনিয়ত ফ্রিল্যান্সারদের প্রোফাইল ঘাটাঘাটি করেন।
কাস্টমাররা ডেভেলপারস,ডিজাইনারস,কন্টেন্ট রাইটার্স, ভার্চুয়াল অ্যাসিসটেন্ট , মোবাইল অ্যাপ ডেভেলপার এবং ডিজিটাল মার্কেটারদের কাজ দিয়ে থাকেন।
Truelancer.Com এ একটি একাউন্ট খুলে আপনি কাজ খুজতে পারেন বা একটি কাজ দিতে পারেন। কাজ দিতে কোন টাকা পয়সা খরচ হয় না এখানে।
Website : Www.Truelancer.Com

০৪. 99designs.com

আপনি যদি একজন গ্রাফিক্স ডিজাইনারকে হায়ার করতে চান, আপনার প্রয়োজনীয় গ্রাফিক্সের কাজগুলো করাতে চান তাহলে
99design.com একটি সেরা প্লাটফর্ম। তবে আগে সেখানে আপনাকে ম্বোর হতে হবে। এ জন্য বিভিন্ন প্যাকেজ রয়েছে তাদের।

০৫. টপটল
২০১০ সালে প্রতিষ্ঠিত টপটাল একটি গ্লোবাল রিমোট সংস্থা যা একটি ফ্রিল্যান্সিং প্ল্যাটফর্ম তৈরি করে। বিভিন্ন ধরণের সফ্টওয়্যার ইঞ্জিনিয়ার, ডিজাইনার এবং ব্যবসায় পরামর্শদাতাদের সাথে সংযুক্ত করে। কাজদাতা ও ফ্রিল্যান্সারদের মধ্যে টপটাল সমন্বয় করে থাকে।
এই ওয়েবসাইটটি গ্রাহকদের জন্য বিশ্বের শীর্ষ ৩% সেরা ফ্রিল্যান্সার সরবরাহ করে। সুতরাং, এটি পরিষ্কার যে যে কেউ এখানে ফ্রিল্যান্সার হিসাবে কাজ করতে আগ্রহী, তার কাজের সাথে তার বিশেষজ্ঞ হওয়া দরকার।
ওয়েবসাইট ঠিকানা: www.toptal.com

০৬. Fiverr
ফ্রিভার যা ফ্রিল্যান্স পরিষেবার জন্য একটি অনলাইন মার্কেটপ্লেস, বিশ্বের অন্যতম জনপ্রিয় ফ্রিল্যান্সিং ওয়েবসাইট। এটি ২০১০ সালে প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল। এটি সপ্তাহের ৭দিন পরিষেবা দেয়। এটি ইংরেজি, স্প্যানিশ, ফরাসী, ডাচ এবং পর্তুগিজ ভাষায় উপলভ্য একটি পরিষেবা। এই সংস্থাটি ফ্রিল্যান্সারদের জন্য একটি প্ল্যাটফর্ম সরবরাহ করে যাতে তারা বিশ্বব্যাপী গ্রাহকদের সেরা সেবা দিতে পারে। এখানে যদি কেউ কাজ করতে চায় তবে তাকে একটি গিগ তৈরি করতে হবে। একটি গিগ তৈরির পরে একজন ফ্রিল্যান্সার বিশ্বব্যাপী গ্রাহককে কী ধরণের পরিষেবা সরবরাহ করতে পারে তা দিতে পারে। একজন ফ্রিল্যান্সার হিসাবে যখন কেউ গ্রাহকের পছন্দ হিসাবে কাজ করে, সে তার পেমেন্ট পরে পাবে। গিগ প্রকাশ করার আগে এখানে ইংলিশ টেস্ট পরীক্ষা আছে। সেটা কিভাবে পাশ করা যায়,গুগলেই খুঁজে দেখুন। উপায়তো পেয়ে যাবেন।

০৭. আপওয়ার্ক

২০১৫ সালে, আমেরিকান ফ্রিল্যান্সিং প্ল্যাটফর্ম এল্যান্স ওডেস্ক তার নামটি আপওয়ার্কে পরিবর্তিত করে এবং এর কার্যক্রম শুরু করে। এটি এমন একটি প্ল্যাটফর্ম যেখানে ব্যবসায় এবং স্বতন্ত্র পেশাদাররা যোগাযোগ করে। যদি কেউ এখানে চাকরি পাওয়ার চেষ্টা করে তবে তাকে তার ফ্রিল্যান্সার প্রোফাইলটি শেষ করতে হবে যেখানে তাকে দক্ষতা, পোর্টফোলিও এবং প্রশংসাপত্র অন্তর্ভুক্ত করতে হবে। ফ্রি এবং পেইড উভয়ই পরিকল্পনা রয়েছে যাতে গ্রাহকদের তাদের আসলে কী প্রয়োজন তা খুঁজে পেতে কোনও সমস্যা না হয়। বিশ্বের অন্যতম জনপ্রিয় এই জবসাইটটি।
ওয়েবসাইট ঠিকানা: www.upwork.com

০৮. ডিজাইনক্রাউড( designcrowd)

অস্ট্রেলিয়ার সিডনিতে ২০০৮ সালে প্রতিষ্ঠিত, ডিজাইনক্রড একটি অনলাইন ক্লাউড সোর্সিং প্ল্যাটফর্ম। ব্যবসাগুলি বিশ্বের সেরা নকশা খুঁজে পাওয়া উচিত, দ্রুত এবং একটি মূল্যে যা তাদের বাজেটের সাথে খাপ খায় এই ওয়েবসাইটটির মূল লক্ষ্য। এই সাইটটি ডিজাইনারদেরও একটি সুযোগ দেয় যাতে তারা তাদের দক্ষতা দেখাতে পারে। যদি কেউ এই সাইটের জন্য কাজ করতে আগ্রহী হন তবে তাকে ডিজাইনটি নির্বাচন করতে হবে এবং তার অ্যাকাউন্টটি নিবন্ধিত করতে হবে। এর পরে কেউ তার নকশা জমা দিতে পারে এবং তার অর্থ প্রদান করতে পারে। এই ওয়েবসাইটটি ব্যবহারের জন্য নিখরচায় তবে ফ্রিল্যান্সারদের তাদের আয়ের হিসাবে কমপক্ষে ৪% থেকে ২০% দিতে হয়।

ওয়েবসাইট ঠিকানা: www.designcrowd.com

০৯. Envato
এনভাটো হ’ল একটি অনলাইন মার্কেটপ্লেস যেখানে যে কেউ বহু ধরণের ডিজিটাল সম্পদ কিনতে পারেন। ১.৫ মিলিয়নেরও বেশি ক্রেতা এবং বিক্রেতারা এখানে ৮ মিলিয়ন সম্প্রদায় সদস্য এবং ৫ মিলিয়ন আইটেম বিক্রয়ের জন্য সক্রিয় রয়েছে। এই বাজারটি মূলত রয়্যালটি মুক্ত স্টক মডেলগুলির নিয়ম অনুসরণ করে। এর অর্থ যখন কেউ যখন কিছু বিক্রি করে তখন তিনি গ্রাহকদের নির্দিষ্ট উপায়ে পণ্যটি ব্যবহার করার জন্য মঞ্জুরি দিচ্ছেন। তবে ক্রেতা আইটেমটির মালিকানা ধরে রাখবে। এনভাটো নিরাপদ এবং ডাউনলোডের জন্য বিনামূল্যে।

১০. Nexxt
মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের পেনসিলভেনিয়ার ওয়েন শহরে প্রতিষ্ঠিত নেক্সেক্সট হ’ল একটি বিশেষ নেটওয়ার্ক যার প্রচুর সদস্য রয়েছে। Nexxt আজকের বিশ্বের সবচেয়ে কার্যকর বাজার কৌশলগুলি ব্যবহার করে যাতে ফ্রিল্যান্সার সেরা পরিষেবা দিতে পারে এবং সেরা অর্থ আয় করতে পারে। প্রকৃতপক্ষে নেক্সেক্সট স্মার্টম্যাচ প্রযুক্তি ব্যবহার করে যা সম্ভাব্য কাজের মিলগুলি, ক্যারিয়ারের বিষয়বস্তু যেমন সংবাদ, নিবন্ধগুলি ইত্যাদির সন্ধান করতে সহায়তা করে যখন কেউ চাকরি খুঁজে পায় এবং তার জন্য আবেদন করে, নেক্সেক্সট আরও একটি একই ধরণের কাজ খুঁজে পায় যাতে সে তার পছন্দসই কাজটি সহজেই খুঁজে পেতে পারে।

ওয়েবসাইট ঠিকানা: www.nexxt.com

১১. পিপলপার আওয়ার
প্রতি ঘন্টা লোকেরা আসলে যুক্তরাজ্য ভিত্তিক সংস্থা company এটি লন্ডনে ২০০৭ সালে প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল। এটি ফ্রিল্যান্সার কর্মীদের ব্যবসায়ের অ্যাক্সেস সরবরাহ করে। এটি সত্যই একটি ব্যবহারকারী-বান্ধব প্ল্যাটফর্ম। একটি কাজ করার পরে পেমেন্ট পাওয়া সত্যিই সহজ। অর্থ প্রদানের পরে, ফ্রিল্যান্সাররা পরিষেবাটি কিনতে বা প্রস্তাবিত ক্রেডিট কিনতে বা ব্যক্তিগত ব্যবহারের জন্য সেই অর্থ প্রত্যাহার করতে পারে। যখন কোনও ফ্রিল্যান্সার কোনও নতুন ক্রেতা খুঁজে পান, কমিশন ফি 0%।

ওয়েবসাইট ঠিকানা: www.peopleperhour.com

১২. Hireable.com

ক্যালিফোর্নিয়ার ইরভিনে অবস্থিত হায়ারেবল.কম একটি সেরা কাজের সন্ধানকারী অনলাইন প্ল্যাটফর্ম। এই ওয়েবসাইটটি মানুষকে তাদের স্বপ্নের চাকরির কাছাকাছি নিয়ে আসা এবং প্রতিভাগুলির জায়গা তৈরি করার লক্ষ্য নিয়ে রয়েছে। এই ওয়েবসাইট সংস্থাগুলির জন্য একটি বড় সম্ভাবনা তৈরি করে যাতে তারা বিশ্বজুড়ে যোগ্য এবং সম্ভাব্য কর্মচারীদের সাথে জড়িত থাকতে পারে। যে কোনও চাকরিপ্রার্থী তার অ্যাকাউন্টটি নিবন্ধন করতে পারবেন। চাকরির পোস্টিং পরিষেবা চাকরি প্রত্যাশীদের তার শক্তিশালী অনুসন্ধান ইঞ্জিনের মাধ্যমে কর্ম সন্ধান করতে সক্ষম করে।

১৩. Amazon
যারা নিস সাইট নিয়ে অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং করে আয় করতে চান তাদের জন্য এই সাইট। বাংলাদেশে বসে ভারত বা যুক্তরাষ্ট্রে মাকের্টিং করতে হবে। পণ্য বা সেবা বিক্রির মাধ্যমে কমিশন অর্জন করা যায়। ১৯৯৪সালের ৫জুলাই এটি প্রতিষ্ঠিত হয়।এটির হেড কোয়ার্টার যুক্তরাষ্ট্রের রাজধানীর সিয়াটল শহরে। ভারতেও রয়েছে আমাজনের বৃহত্তম বাজার।
Website : Www.Amazon.Com

১৪.Simply Hired
সিম্পলিহায়ারড ডটকম ফ্রিল্যান্সারদের অনলাইন ও অফলাইনে কাজ করার সুবিধা দিয়ে থাকে।যে কেউ এখানে চাকুরির অফার দিতে পারে এবং যে কোন লোক ফ্রিল্যান্সার হিসেবে কাজ করতে পারে। বিভিন্ন রকমের কাজ ও বিভিন্ন স্থানের ফ্রিল্যান্সার দিয়ে করানো যায়।
আপনি যদি ফ্রিল্যান্সার হয়ে থাকলে সিম্পলি হায়ারড ডটকম আপনার জন্য সেরা প্লাটফর্ম। এখানে অনেক ভাল ভাল ও নামীদামী কাজদাতা এই সাইটে কাজ অফার করে থাকেন। অনেক অভিজ্ঞরা অবশ্যই এখানে কাজ করেন।

১৫. Designhill.com

ফ্রিল্যান্সারদের কাছে ডিজাইনহিল অনেক জনপ্রিয় এবং প্রসিদ্ধ মার্কেটপ্লেস।লোগো ডিজাইন, ব্রোশিয়ার, ওয়েবসাইট ডিজাইনসহ নানা ডিজাইনের জন্য ডিজাইনহিল বেশ আকর্ষনীয়। আপনি সহজে যে কোন ডিজাইনকাজের জন্য এখান থেকে ভাল ফ্রিল্যান্সার বেছে নিতে পারেন।

১৬. BEHANCE.COM

১৭. BELANCER.com

উপরে ১৭টি মার্কেট প্লেসের কথা উল্লেখ করা হলেও সংক্ষিপ্ত আলোচনা করেছি মাত্র ১৫টি নিয়ে। বাকি দুটি নিয়ে কিছু লেখা হয় নি। কারণ ১৬ ও ১৭ সাইট দুটিও চমৎকার মার্কেট প্লেস। যদি এগুলো ডিজাইনের কাজের সাথে সংশ্লিষ্ট।

আপনার যদি কোন বিষয়ে দক্ষতা,অভিজ্ঞতা এবং যোগাযোগের সক্ষমতা থাকে তাহলে আপনি যে কোন জব সাইটে সহজে কাজ করতে পারবেন।সারাবিশ্বের ফ্রিল্যান্সাররা মূলত উপরের ফ্রিল্যান্সিং মার্কেট সাইটগুলো হতে প্রতিদিন লাখ লাখ ডলার আয় করছে। এ সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে পড়ুন : ফ্রিল্যান্সিং করে নিজেই হোন নিজের বস

Leave A Reply

Your email address will not be published.