আপনি কি ফ্রিল্যান্সিং ও আউটসোসিং নিয়ে কাজ করেন। আপনার কি কোন ব্লগ বা ওয়েবসাইট আছে?যদি উত্তর হ্যা হয় তাহলে আপনার জন্য গুগল অ্যানালিটিক্স  জানা খুব জরুরি। অ্যানালাইটিকস শব্দের অর্থবোধক পরিভাষা হল পরিসংখ্যান বা পর্যবেক্ষন করা। ওয়েবে অ্যানালাইটিকস হল বিভিন্ন ওয়েবলিংক এর হিট পর্যবেক্ষন করা।

যারা ওয়েবসাইটের মাধ্যমে অনলাইন ব্যবসা করেন তাদের জন্য গুগল অ্যানালিটিক্স ব্যবহার করা অবশ্যই কর্তব্যের মধ্যে পরে। গুগল অ্যানালিটিক্স গুগলের একটি ফ্রি ওয়েবসাইট ডেটা অ্যানালাইসিস সার্ভিস যার মাধ্যমে আপনি সার্বক্ষণিক ওয়েবসাইটের ট্রাফিক পর্যবেক্ষন করতে পারবেন।

আপনি কী শিখবেন, কী জানবেন বা দেখতে পাবেন এই ডেটা সুবিধায়

এই অ্যানালিটিক্স সেবার মাধ্যমে আপনারব্লগ বা ওয়েবসাইটে বা ভিডিও চ্যানেলে সহজে দেখতে পাবেন আপনার ওয়েবসাইটের ট্রাফিক সোর্স। যেমন কতজন ভিজিটর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম থেকে, কতজন ডিরেক্ট আপনার সাইট ভিজিট করেছে, কতজন সার্চ ইঞ্জিনে সার্চ করে এসেছে এবং কতজন অন্যান্য ওয়েবসাইট থেকে আপনার ওয়েবসাইটে এসেছে।কোন কোন দেশ থেকে আপনার ওয়েবসাইট ভিজিট হচ্ছে তার ডেটাও পাবেন। পুংখানুপুঙখ হিসাব পাবেন এখানে।

তা ছাড়া সোশ্যাল মিডিয়া টুইটার, ফেসবুক, হোয়াটসঅ্যাপ এবং ডেস্কটপ বা মোবাইল ব্রাউজার থেকে কতজন ভিজিটর, গুগল বা অন্যান্য সার্চ ইঞ্জিন থেকে কতজন সেই সংখ্যাও দেখতে পারবেন। সব রকমের ডাটা আপনার সামনে হাজির করবে গুগল অ্যানালাইটিক্স।

ওয়েবসাইটের কোন কোন পেইজ ভিজিটররা বেশি ভিজিট করে তার লিস্ট পাবেন এখান থেকে। সাপ্তাহিক/মাসিক বা নির্দিষ্ট সময়সীমার মধ্যে বিভিন্ন পেইজ ভিজিটের ডেটা থেকে আপনি বুঝতে পারবেন আপনার জনপ্রিয় বিষয় কোনটি।কোন পোস্টটি কত জনপ্রিয়তা পেল।

আপনার ওয়েবসাইট যারা ব্রাউজ করছেন তারা মোবাইল, ডেস্কটপ বা ট্যাবলেট ডিভাইস ব্যবহার করে থাকেন। এই অংশ থেকে আপনি নির্দিষ্ট সময়সীমায় কোন ডিভাইস বেশি ব্যবহৃত হয়েছে তা জানতে পারবেন।

পরিসংখ্যান থেকে আপনি সিদ্ধান্ত নিতে পারবেন আপনার ওয়েবসাইট অবশ্যই সম্পূর্ণ মোবাইল রেসপন্সিভ হতে হবে এবং আপনার প্রমোশন ক্যাম্পেইননেও মোবাইল ব্যবহারকারীরা অগ্রাধিকার পাওয়া উচিত।

গুগল অ্যানালাইটিক্স একাউন্ট করতে হলে অবশ্যই আপনার একটি সাধারণ জিমেইল একাউন্ট থাকতে হবে এবং এই জিমেইল একাউন্ট দিয়েই আপনি আপনার গুগল অ্যানালাইটিক একাউন্ট রেজিস্ট্রেশন করে নিতে পারবেন। আরেকটা কথা, এটা গুগলের সম্পূর্ণ ফ্রি সেবা, এজন্য আপনার কোন টাকা খরচ করতে হবেনা।

আপনার ক্যারিয়ার প্রোফাইলকে উন্নত, ক্লায়েন্টকে দৃষ্টি আকর্ষণ বৃদ্ধি করতে এবং আপনার বিপণনকে ক্ষমতাকে আরো উন্নত করতে গুগল অ্যানালাইটিক্স সাইর্টফাইড হোন ও নিজের আয় বাড়িয়ে করুন।গুগল অ্যানালিটিক্স কীভাবে ব্যবহার করতে হয় তার একটি পেশাদার স্তরের পরীক্ষায় সফলতা অর্জন করুন আপনি একাধিক প্রপার্টির(ওয়েবসাইট বা ব্লগ) সাথে একটি অ্যানালিটিক্স অ্যাকাউন্ট সংযুক্ত করতে পারেন, প্রতিটি প্রপার্টির সাথে একটি বিশিষ্ট শনাক্তকারী থাকে যা ট্র্যাকিংয়ের জন্য ব্যবহৃত হয়। আপনি কোনও নতুন প্রপার্টি সেট-আপ করার সময় বেছে নিতে পারেন যে আপনি ওয়েবসাইট কিনা মোবাইল অ্যাপ ট্র্যাক করবেন।

মনে রাখবেন গুগল অ্যানালাইটিক্স সাইর্টফাইড হতে কোন অভিজ্ঞতার দরকার নেই।শিখে ফেলুন গুগল অ্যানালিটিক্স। বাড়িয়ে নিন আপনার মাসিক আয়।

হাজার হাজার ফ্রিল্যান্সারের ভিড় থেকে নিজেকে নিজেকে পৃথক করে দাঁড়ান এবং গুগল অ্যানালিটিক্স বিশেষজ্ঞ হিসাবে নিয়োগ নিয়ে কাজ বাগিয়ে নিন।এটি জানা কিন্ত বিশেষ যোগ্যতা ও দক্ষতা বলা চলে।

আপনার গুগল অ্যানালিটিক্স প্রশংসাপত্রের সাথে আপনার পরবর্তী সাক্ষাত্কার, প্রচার বা ক্লায়েন্টকে সুরক্ষিত করুন।
গুগল অ্যানালিটিকাগুলির একটি পেশাদার স্তর বোঝা অর্জন করুন।
একটি ডেমো অ্যাকাউন্ট দিয়ে অভিজ্ঞতা অর্জন করুন।
গুগল অ্যানালিটিক্স সঠিকভাবে সেট আপ করুন।

আপনার সমগ্র ওয়েবসাইটের প্রতিবেদন বিশ্লেষণ করে  ট্রাফিক বৃদ্ধি করুন।আর বাড়িয়ে নিন অনলাইনে আয়।

গুগল সার্টিফাইড পেশাদার হতে কোনও কিছুই আপনাকে পিছনে রাখছে না, প্রত্যয়িত হওয়ার জন্য আপনার কোনও সংস্থার অংশ হওয়ার দরকার নেই,  চাকরীতে কোনও অভিজ্ঞতার দরকার নেই, অফিসিয়াল পরীক্ষা দেওয়ার জন্য আপনার এক টাকাও ব্যয় করতে হবে না

এই কোর্সটি কার জন্য:
যে কেউ এই নতুন ডেটা চালিত আর্থিক ব্যবসায় সাফল্য অর্জন করতে চান তিনি গুগল অ্যানালাইটিক্স সাইর্টফাইড হতে চেষ্টা করতে পারেন। তবে সাম্প্রতিক স্নাতক ডিগ্রী অর্জন করেছেন যারা তাদের প্রোফাইলকে শক্ত করতে এই যোগ্যতা করতে পারে।
এসইও এবং পিপিসি বিশেষজ্ঞ যারা প্রতিযোগিতা থেকে নিজেকে আলাদা করতে চান,বিপণনকারীরা যারা তাদের ভূমিকার মধ্যেই বিপণন বিশ্লেষণগুলি অর্জন করতে চান, ওয়েবসাইটের মালিকরা তাদের বিশ্লেষণ (এবং ব্যবসা!) পরবর্তী স্তরে নিয়ে যেতে চান, এজেন্সিগুলি যারা দ্রুত স্টাফ সদস্যদের প্রশিক্ষণ দিতে চান তাদের সকলের গুগল অ্যানালাইটিক্স শিখে রাখা জরুরি।একজন ফ্রিল্যান্সার হিসেবে বিনা খরচে গুগল অ্যানালাইটিক্স সার্টিফাইড হবার সুযোগ হাতছাড়া কোনভাবে উচিত নয়।কারণ আপনার অনলাইনে আয় বৃদ্ধিতে এটি দারুন সহায়ক ভূমিকা রাখবে।

লেখাটা কিছুটা ভাল লাগলে শেয়ার কোর অনুরোধ রইলো।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here