অনেক স্বপ্ন আশা ভরসা নিয়ে ওয়েব সাইট খুলেছেন।অনেক মেধা শ্রম ও অর্থ আপনি বিনিয়োগ করবেন সেটায়।সেটিকে আপনি আপনার জীবন জীবিকার কর্মসংস্থান মনেও করতে পারেন। যদি জনপ্রিয় করতে না পারেন আপনার ওয়েব সাইট তাহলে সব শ্রম মেধা ও অর্থ হয়ে যাবে মাটি।প্রত্যেকে চায় তার ওয়েব সাইটটি অনেক বেশি জনপ্রিয় হোক, প্রতিদিন লক্ষ লক্ষ মানুষ তার ওয়েব সাইট ভিজিট করুক।কিন্ত প্রকৃত প্রশ্ন হলো : আপনি আপনার ওয়েব সাইটকে কীভাবে জনপ্রিয় করবেন? ওযেব সাইটকে অধিক জনপ্রিয় ও বেশি বেশি ভিজিটর পেতে অনেক কৌশল অবলম্বন করতে হয়।সে সব কৌশলে কাজ করলে আপনি পাবেন আপনার কাজের স্বীকৃতি ও প্রিয়তা। আয় হবে মনের মত।

আপনার ওয়েবসাইট জনপ্রিয় করার জন্য ওয়েবসাইট উন্নয়ন দরকার।
আপনার পাঠক সনাক্ত করুন

আপনার পাঠক কারা?

স্থানীয়? আঞ্চলিক? জাতীয়? আন্তর্জাতিক? পেশাদারী? কন্টেন্ট চালিত?
আপনার ওয়েবসাইট বিকাশের বিষয়ে দৃষ্টিভঙ্গি রাখুন:
আপনি মাইক্রোসফ্ট, জাতিসংঘ বা কংগ্রেস লাইব্রেরির সাথে প্রতিযোগিতা করছেন না
আপনার বিষয়বস্তু পর্যালোচনা করুন।
আপনার কনটেন্টগুলোর মধ্যে কোন নিসটি আপনার পাঠকদের কাছে জনপ্রিয়?
যেমন-

সেটির ওপর জোর দিন।

রাতারাতি কোন ওয়েব সাইট জনপ্রিয় হয় না। আজ আমি কিছু জরুরি কৌশল বা টিপস নিয়ে আলোচনা করবো।

০১. শিক্ষা ও শিক্ষা প্রতিষ্টানের ওয়েব সাইটের সাথে লিংক তৈরি করা। এসব লিংক হয় অনেক উঁচু মানের্ ।ওয়েবসাইটকেঅনেক মূল্যবান গড়ে তোলে।

০২. অতিথি কলাম বা পোস্ট লিখন –গেস্ট পোস্ট বা ব্লগিংহলো বিনা বিজ্ঞাপনে নতুন নতুন ভিজিটর পেতে সবচেয়ে কার্যকর মাধ্যম।

০৩. গোপনে নজর রাখুন আপনার প্রতিযোগী ওয়েবসাইটগুলোর সোশ্যাল মিডিয়া তৎপরতা(Spy on your competitors on social media),লিংক বিল্ডিং(Link-building) এবং আয় করার পদ্ধতির ওপর(Earning techniques)।

Please check alexa ranking, keyword position in everyday. Also check free moz.com data of competitors.

প্রয়োজনে তাদের পোস্ট বা নিউজলেটার সাবস্ক্রাইব করুন। Create google alert for the keyword.

০৪. প্রতিটি পোস্টে বেশি বেশি এ্যাংকর লিংক তৈরি করুন।

০৫. আপনার সেরা আর্টিকেলটি সকলকে মেইল করুন।আপনার জনপ্রিয় আর্টিকেরের একটি তালিকা আপনার সাইটেই প্রকাশ করুণ যা পাঠকের নজরে আসবে।

০৬. টেস্টিমোনিয়াল লিখুন-যে সব প্রতিষ্টান বা ওয়েবসাইটের নানা সেবা গ্রহণ করছেন তার বর্ণনা ও প্রশংসা সুলভ ছোট পোস্ট লিখুন। এখান থেকে ভাল ব্যাংক লিংক পেতে পারেন।

০৭. ভাল ভাল লেখক ও সাংবাদিকদের নিকট আপনার ওয়েবসাইটের নিস ও কী ওয়ার্ড নিয়ে লেখা আর্টিকেল মেইল করুন।মনপুত হলে তাদের পাবলিকেশনে প্রকাশ করতে পারেন। তাহলে সেখান থেকেও কিছু ভিজিটর ও ব্যাংক লিংক আসবে নিশ্চিত।যুক্তরাষ্ট্রের মিডিয়াগুলো বলছে, পোস্টের শতকরা ১০জন পাঠক আপনার ওয়েব সাইট অবশ্যই ভিজিট করবেন।

০৮. সরকারি প্রতিষ্টানের ওয়েবসাইটগুলো সবচেয়ে যোগ্য, স্বীকৃত ও বিশ্বস্ত। তাদের সংশ্লিষ্ট পোস্ট লিখে, মূল্যবান কমেন্ট দিয়ে লিংক তৈরি করতে পারেন। তাতে আপনার সাইটের আন্তর্জাতিক গ্রহণ যোগ্যতা ও অনলাইনে আয়ে আর্নিং রেট বাড়বে।এসব লিংককে খুবই মূল্যবান ধরা হয়ে থাকে।

০৯.আপনার নিস সংশ্লিষ্ট ডিরেক্টরিতে আপনার ওয়েবসাইটকে যুক্ত করার চেষ্টা করুন।ওপেন ডিরেক্টরি প্রজেক্ট এবং ইয়াহু বিজনেস ডিরেক্টরি খুব গুরুত্বপূর্ণ, উচ্চ ক্ষমতাসম্পন্ন ডিরেক্টরি।

১০. বিভিন্ন ফোরামে যোগ দিন।আপনার সাইটের নিস সংশ্লিষ্ট ফোরামে যোগ দিলে নানা প্রচারণার সুবিধা পাবেন।আপনার সাইট যদি অনলাইনে আয় ভিত্তিক নিস যুক্ত হয় তাহলেতো কথাই নেই।দেখবেন ফোরামের অনেকেই আপনার সাইটে ভিজিট করছে। লিংক করার চেষ্টা করবে।তাতে আম ছালা দুটোই আপনার থাকবে।

১১. আপনার ওয়েবসাইট সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন ব্লগের নানা পোস্টে মূল্যবান মতামত, পরামর্শ ও মন্তব্য লিখে, আলোচনায় অংশ নিয়ে আপনার সাইটে নতুন নতুন ভিজিটর আনতে পারেন।

১২. Help a Reporter টাইপ পোস্ট প্রকাশ করুন। বেশ কিছু মিস্টি লিংক সৃষ্টি হবে।মনে রাখবেন মানবিক আবেদন সংশ্লিষ্ট পোস্টগুলো বেশ শেয়ার হয়।

১৩.সোশ্যাল বুক মার্কিং সাইট: Reddit,Digg এবং Stumbleupon খুব জনপ্রিয় সাইট।এগুলোর লিংক খুবই মূল্যবান হিসেবে সার্চ ইঞ্জিনগুলো সাইট র‌্যাংকিংয়ে প্রাধান্য দেয়।

১৪. আপনার ওয়েব সাইটে প্রকাশিত পোস্ট বা কনটেন্টগুলো নিয়মিত আপডেট করুন।কারণ সার্চ ইঞ্জিনগুলো নিয়মিত র‌্যাংকিংয়ের জন্য ক্রলিং করে থাকে।নতুনত্ব না পেলে তারা পাত্তা দেয় না।

১৫. RSS Directory- নিরাপদ লিংক সৃষ্টি করার জন্য খুব গুরুত্বপূর্ণ।

১৬. WIKI site: Wikipedia এর সাথে লিংক সৃষ্টি করতে পারলে তো কথাই নেই।মনে রাখবেন সাবধানতার সাথে নিয়ম মেনে করতে হবে।

১৭. কিছু দিন পর পর আপনার সাইটের ফ্রি অডিট করুন।ফ্রি এসইও সাইটগুলো দিয়ে এসইও এর বিভিন্ন দিকগুলো যাছাই বাছাই করে নিন।

১৮. Metadata, Title metadata and description metadata কিছুদিন পরপর আপডেট করুন।

১৯.Use Alt tag অথবা Alternative text description.

বন্ধুরা আজ এ পর্যন্তই।তবে মনে রাখবেন Moz.com, Alexa.com এসব সাইটগুলো সব সময় গুরুত্বপূর্ণ পরামর্শ দেয়।সামর্থ্য না থাকলে তাদের ফ্রি সেবা নিন।গুগলের এ্যানাইটিক্স খুব খুব মূল্যবান।সার্চ কনসল,গুগলট্যাগদ্বারা আপনার সাইট ভেরিফাইড রাখুন।প্রতিদিন নজর রাখুন ডাটার ওপর।

জালিয়াতি করে সাইটকে জনপ্রিয় করার চেষ্টা করবেন না।তাতে ফলাফল শূণ্য হবেতো বটে আরও মাইনাসে থাকবেন।সার্চ ইঞ্জিনগুলো আপনাকে ব্লাকহ্যাট এসইওর জন্য চিরতরে ব্লক মেরে দেবে।ধৈর্য্যসহকারে ইপরের নিয়মগুলো মেনে আস্তে আস্তে সাইটকে গড়ে তুলুন। রাতারাতি বিখ্যাত করার চেষ্টা করবেন না।কখনও ফেক ভিজিটর কেনার চিন্তা করবেন না।কনটেন্টকে জনপ্রিয় করার কথা সব সময় মাথায় রাখুন।ফল একদিন আসবেই। আসতেই থাকবে।

ইনশআল্লাহ আপনার সাইটের দিন দিন জনপ্রিয়তা বৃদ্ধি পাবে।আয়ও বাড়বে। বাড়বে আয়ের রেটও কিন্ত।ভাল লাগলে শেয়ার করুন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here